বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুতে জেলা ইউনিট কমান্ড ও স্বেচ্ছাসেবক কমিটির শোক                 আজ থেকে খুলছে ১৮ মন্ত্রণালয়ের অফিস : কাজ চলবে সীমিত                 মহানগর যুবলীগের সম্পাদক মুশফিক জায়গীরদারের ইফতার বিতরণ                 ইনজেকশন পুশ করার ৩ ঘন্টার মধ্যে সুস্থ করোনা আক্রান্ত !                 খাদ্য সামগ্রী নিয়ে অসহায়দের পাশে বিএনপি নেতা ছাত্তার                 ক‌রোনার উপসর্গ নি‌য়ে হাসপাতালে ১ জনের মৃত্যু                 করোনা যুদ্ধে প্রস্তুত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমন্বয়ে গঠিত স্বেচ্ছাসেবীরা                
২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ৬ই জুন, ২০২০ ইং শনিবার সকাল ১০:৩৪ গ্রীষ্মকাল

 

 

 

করোনা যুদ্ধে প্রস্তুত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমন্বয়ে গঠিত স্বেচ্ছাসেবীরা

প্রকাশিত হয়েছে : ৯:৫২:১০,অপরাহ্ন ২৩ এপ্রিল ২০২০ |
এ সংবাদটি পড়া হয়েছে 39 বার
করোনা যুদ্ধে প্রস্তুত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমন্বয়ে গঠিত স্বেচ্ছাসেবীরা

বর্তমানে করোনা নামক ভাইরাস কর্তৃক আক্রান্ত সারা বিশ্বের মানবকুল। প্রতিদিন মানুষ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছেন। প্রতিষেধক আবিষ্কারে বিজ্ঞানীকুল ২৪ ঘন্টা গবেষনায় রত।

এরই প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতত্বে বাঙ্গালী জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে যেভাবে ১৯৭১ সালের ঘাতকদের মত ঘাতক “কোভিড-১৯” এর বিরুদ্ধে সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। তাই আন্তর্জাতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকার ও জাতিকে সহায়তা করার জন্য সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ড কর্তৃক এক স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত ২২ এপ্রিল বুধবার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ডের কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল স্বাক্ষরিত ৩১ সদস্য বিশিষ্ট্য এক পত্রে জেলা-মহানগর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমন্বয়ে নুর আহমদ কামালকে প্রধান করে এই স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন হয়।

তাছাড়া স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠনের পর থেকে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার, উপ-মহাপরিদর্শক, এসএমপি পুলিশ কমিশনার, মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রির একান্ত সচিব, সচিবের একান্ত সচিব। এছাড়াও সিলেট জেলা প্রশাসক, এসএমপি, উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর), উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) সহ সিলেট জেলার সকল থানায় পৃথক পৃথকভাবে কমিটির নামের তালিকা সকলের মোবাইল নাম্বার সহ হন্তান্তর করেন গঠিত কমিটির প্রধান নুর আহমদ কামাল সহ অন্যান্য সদ্যরা।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ডের কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, করোনা ভাইরাস একটি যুদ্ধ। ১৯৭১ সালে আমরা যেভাবে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি। এখন আমাদের সাথে আমাদের সন্তানদেরকেও এই মহামারি করোনা ভাইরাস নামক যুদ্ধে জয় করতে হবে। তাই তিনি আশাপ্রকাশ করেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের সমন্বয়ে গঠিত এই স্বেচ্ছাসেবীদের দ্বারা মানুষ অনেক সহযোগিতা পাবে। তাই তিনি সকলক কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এই মহামারি যুদ্ধে সবাইকে শামিল হওয়ার আহ্বান জানান।

এসময় স্বেচ্ছাসেবক কমিটির প্রধান নুর আহমদ কামাল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালী জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে ৭১ এর ঘাতকদের মতো ঘাতক এই করোনা ভাইরাস বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ঝাপিয়ে পড়েছেন। মানুষ মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসছেন। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের এই যুদ্ধে আমাদের মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের শামিল করার জন্য তিনি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

এ সময় তিনি আরো বলেন, করোনা একটি মহামারি রোগ। তাই আতঙ্কিত না হয়ে ঘরে থাকুন। আমরা আমাদের সামর্থ দিয়ে সব ধরনের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিব। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের মানুষের কথা সব সময় চিন্তা করেন। তিনি বেঁচে থাকতে একজন অসহায় মানুষকেও বিনা চিকিৎসা ও না খেয়ে মৃত্যুবরণ করতে দেওয়া হবে না। আর যারা অসহায় হয়ে পড়বেন তারা আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। এরপর তিনি মহান রাব্বুল আল আমিন দরবারে সবাইকে বেশি বেশি করে ফরিয়াদ করার আহ্বান জানান। নিশ্চই মহান রাব্বুল আল আমিন আমাদের রক্ষা করবেন।

এরপরও আতঙ্কিত না হয়ে নিম্নের মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য বিনীত অনুরোধ জানানো হয়েছে। যে নাম্বারগুলো হলো- নুর আহমদ কামাল- ০১৭১৫ ৩৭৯২৬২, আব্দুল খালিক লাবলু- ০১৭১২ ৫১৬০০৯, দেওয়ান মুরাদ হাসান- ০১৭১৭ ৪৯১৪৮৯, ছিফত আলী- ০১৭১১ ১৬৪৭৮১, সুজন মিয়া- ০১৭১১ ৯১০৩৫৪, সাইফুল ইসলাম ০১৭১১ ৯৬৬৪০৮। দেশের মানুষের স্বার্থে প্রশাসনকে যেকোন ধরনের সহযোগিতা দিতে তারা প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



AD

 

 

 

 

 

 

 

devolop ওয়েব হোম বিডি Mobile: 01711-370851