শায়েস্তাগঞ্জে চান্দের গাড়ির চাপায় শিশু নিহত                 দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ দেখতে হাসিনাকে মোদির আমন্ত্রণ                 রোববার থেকে শুরু প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা                 গুলতেকিনের বিয়ে নারীদের জন্য নতুন দ্বার উন্মোচন, বললেন নুহাশ                 সিরাজগঞ্জে রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত                 মাধবপুরে শিল্প কারখানায় আগুনে অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি                 কমলগঞ্জে টিলা ধ্বসে নারী নিহত                
৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং শুক্রবার রাত ৩:৩৬ হেমন্তকাল

 

 

 

বেসরকারি হাসপাতালে শুধু ব্যবসার জন্য নয় সামাজিক দায়বদ্ধতাও জড়িত

প্রকাশিত হয়েছে : 2:22:51,অপরাহ্ন 21 September 2018 |
এ সংবাদটি পড়া হয়েছে 257 বার
বেসরকারি হাসপাতালে শুধু ব্যবসার  জন্য নয় সামাজিক দায়বদ্ধতাও জড়িত

ওপেননিউজ ডেস্ক :: বেসরকারি হাসপাতালে শুধু ব্যবসার জন্য নয়, সামাজিক দায়বদ্ধতার বিষয়টিও রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রাইভেট হসপিটাল এন্ড ডায়গানস্টিক সেন্টার ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ও নুরজাহান হসপিটালের স্বত্বাধিকারী ডা. নাসিম আহমদ ।
তিনি বলেন, রোগীদের সেবায় দায়বদ্ধতার জন্য এই সংগঠন করা হয়েছে। সেবাগ্রহীতাদের অভিযোগ-অনুযোগ খতিয়ে দেখার এসোসিয়েশনে অভিযোগ কেন্দ্র খোলা হবে । অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য কমিটিতে সাংবাদিকদেরও সদস্য হিসেবে রাখা হবে ।
বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে এসোয়েশন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি ।
এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ বলেন, সিলেটে ৬৫ টা ডায়গানস্টিক সেন্টার, ৫৮ টা হাসপাতাল রয়েছে । এসব প্রতিষ্ঠানের অর্ধেকের বেশি এসোসিয়েশনের অধিভ’ক্ত এখন। বাকি প্রতিষ্টানের সেবার মান যাচাই করে এসোসিয়েশনের অন্তভ’ক্ত করা হবে ।
সভাপতির বক্তব্যে ডা. নাসিম বলেন, বাংলাদেশে ১৮ কোটি মানুষের জন্য পরিপূর্ণ ১৮ শ’ হাসপাতাল আছে। এর ৭৬ শতাংশ বেসরকারি ও বাকিটা সরকারি হাসপাতাল ।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপদে ১০ হাজার মানুষের জন্য আছে ৩ জন চিকিৎসক একজন নার্স। যেখানে জাতিসংঘ স্বাস্থ্য সংস্থার চাহিদা হলো এক হাজার লোকের জন্য এক জন চিকিৎসক ৩ জন নার্স । সে তুলনায় আমাদের অবস্থা অপ্রতুল। তারপরও সব অসুখের পর আমাদের দেশের মানুষের গড় আয়ু এখন ৭২ শতাংশ। যেখানে পাশের দেশ ভারতে ৬৯ শতাংশ ।
বক্তারা বলেন, সিলেটেও জনসংখ্যার চেয়ে হাসপাতাল অপ্রতুল। এজন্য হাসপাতালগুলো বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এখানে হাসপাতালের মানে-গুনে প্রতিযোগীতা আছে কিভাবে আমরা উন্নতি করতে পারি। সাফল্যের দিকেও সিলেট এগিয়ে আছে বলে দাবি করেন এসোসিয়েশনের নেতারা ।
বক্তারা বলেন, সেবা প্রদানে ত্রুটি হয়, হাজারে একটি হয়। কিন্তু চিকিৎসকদের কাজ মানুষের জীবন রক্ষা করা। প্রতিষ্টানগুলোতে হাজার হাজার অস্ত্রপচার হলেও ভুল চিকিৎসার দু’একটি অভিযোগ থেকেই যায়।
এছাড়া বেসরকারি হাসপাতালে গত ৩৪ বছরে একই চার্জ ছিল। জীবন মানের তুলনায় এখন কেবল হাজার টাকা চার্জ বেড়েছে, বলেন তারা।
পরিক্ষা-নিরীক্ষার মূল্যে তফাতের ব্যাপারে এসোসিয়েশনের নেতারা বলেন, হাসপাতাে ও ডায়গানস্টিক সেন্টারে গুণগত মান ভেদে পরিক্ষা নিরীক্ষার মূল্যের ভেদাভেদ আছে। যেহেতু সরকার এটি নির্ধারণ করে দেয়নি। তারপরও এসোসিয়শেন চার্জ তালিকা করার জন্য উদ্যোগ নেবে।
তাছাড়া প্রসূতির অস্ত্রপচার (সিজার) করার প্রবণতা রোধে প্রদক্ষেপ হিসেবে দুই জন কনসালটেন্টের সিদ্ধান্তের পর নেওয়া হবে। তবে চিকিৎসক দ্বারা রোগীদের প্রেসক্রিপশন করা ও কমিশন ব্যবসার ব্যাপারে তারা কিছু করতে পারবেন না অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, এটা চিকিৎসকদের ব্যক্তিগত।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় আইডিয়াল হসপিটালের পরিচালক আজিজুর রহমান রুম্মান, সহ সভাপতি ও সিটি ক্লিনিকের পরিচালক ডা. আবু ইউসুফ ভ’ইয়া, সহ সভাপতি ও ইউনাইটেড হাসপাতালের পরিচালক ডা. সৈয়দ মাহমুদ, ইবনেসিনা হাসপাতালের পরিচালক আব্দুল কাদির, এসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ ও ক্রিসেন্ট মেডিকেল সার্ভিসেস এর স্বত্বাধিকারী জাকির আহমদ চৌধুরী।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share



AD

 

 

 

 

 

 

 

devolop ওয়েব হোম বিডি Mobile: 01711-370851